Thursday November 23, 2017
বহিঃবিশ্ব
28 October 2017, Saturday
প্রিন্ট করুন
মাদকের বিস্তার যুক্তরাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি: প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প
জাস্ট নিউজ -
হেয়াইট হাউস থেকে বিশেষ সংবাদদাতা, ২৮ অক্টোবর (জাস্ট নিউজ): যুক্তরাষ্ট্রের তরুণ প্রজন্মকে মাদকের ভয়াল থাবা থেকে উদ্ধারের আহবান জানিয়ে দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমাদের তরুণ প্রজন্মই পারে দেশ থেকে মাদকের মহামারীর অবস্থার ঘটাতে। তিনি মাদকের আগ্রাসনকে জাতীয় স্বাস্থ্যের জন্য অত্যাসন্ন ঝুঁকি হিসেবেও ঘোষণা করেন।

বৃহস্পতিবার হোয়াইউট হাউসের ইস্টরোমে আয়োজিত মাদক বিরোধী এক অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, মাদকের এই মহামারী স্বাস্থের জন্য এক অত্যাসন্ন ঝুঁকিতে পরিণত হয়েছে। এখন মাদক নিয়ে যা ঘটছে এমনটা এর আগে কেউ দেখেনি। মাদকের বিস্তার যুক্তরাষ্ট্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকি।

মাদক প্রতিরোধে নিজের দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করে ট্রাম্প বলেন, আমেরিকান হিসেবে মাদকের এ অব্যাহত বিস্তারকে আমরা মেনে নিতে পারিনা। মাদকাসক্তির ভয়াল থাবার হাত থেকে আমাদের সম্প্রদায়কে বাঁচিয়ে রাখার এখনি মোক্ষম সময়। এভাবে চলতে দেয়া যায় না। মাদকের মহামারী আমাদের প্রজন্মই রুখতে পারে। আর আমরাই এটা করতে পারি।

অনুষ্ঠানে মাদক প্রতিরোধ এবং তার বিস্তার রোধে সবিস্তর কথা বলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট। তিনি মাদক চালন বন্ধে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর তৎপরতা আরো বাড়ানো এবং মেক্সিকো সীমান্ত হয়ে দেশে আবাধ মাদক পাচার বন্ধে সীমান্ত দেয়াল তৈরিসহ নানান পদক্ষেপ নেবার কথা জানান।

এবিষয়টির দিকে ইংগিত করে ট্রাম্প বলেন, আশ্চর্যজনক পন্থায় হিরোইন পাচারের শতকরা ৯০ ভাগই এসে থাকে দক্ষিণ সীমান্ত থেকে। সেজন্য আমরা সীমান্ত দেয়াল তৈরি করতে চাই, আর এটি সংকট সমাধানে বড় ভূমিকা রাখবে।

দেশে মাদক ব্যবহারে সতর্কতার আহবান জানিয়ে তিনি বলেন যে সমস্ত নাগরিকরা অবৈধ মাদক কিনবেন তাদের আইনের আওতায় আনা হবে। মাদকের অপব্যবহার রোধে প্রথমত আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর তৎপরতা আরো বাড়ানো হবে।

ট্রাম্প বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে যারাই অবৈধ মাদক ক্রয় করেন তাদের সবারি জানা উচিত যে তারা ভবিষ্যত প্রজন্ম, তাদের পরিবার আর জীবনগুলোকে বিপদের দিকে ঠেলে দিচ্ছেন।

তিনি বলেন, অবৈধ মাদকের ব্যবহার কখনো নিরাপরাধ কর্মকান্ডের পর্যায়ে পড়ে না। এটি প্রশংসামূলক বা ইতিবাচক কোন কাজ না। এমনকি সমাজও এমন কান্ড পছন্দ করে না।

ট্রাম্প সরকারের বিগত কয়েকমাসের নেয়া পদক্ষেপগুলোর মধ্যে মাদকবিরোধী এ কঠোর অবস্থানকে খুবিই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ হিসেবে দেখছেন সংশ্লিষ্টরা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বৃহস্পতিবারই তার ভারপ্রাপ্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইরিক হেরগেনকে মাদক বিস্তার রোধে বিষয়টিকে জাতীয় স্বাস্থ্যের জন্য অত্যাসন্ন ঝুঁকি হিসেবেও ঘোষণা করার এবং এ সংকট মোকাবিলায় অধিক অর্থ ছাড়ের নির্দেশ দিয়েছেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে মাদকের ভায়াবহ ছোবল এবং এর প্রতিকার নিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প।
জাস্টনিউজ সম্পাদক ও হোয়াইট হাউস সংবাদদাতা মুশফিকুল ফজল আনসারী এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

(জাস্ট নিউজ/জিই/১৫২০ঘ)






মতামত দিন
বহিঃবিশ্ব :: আরও খবর
প্রচ্ছদ
ছবি গ্যালারী
যোগাযোগ