Tuesday January 24, 2017
খেলার মাঠ
11 January 2017, Wednesday
প্রিন্ট করুন
‘অধিনায়ক’ ধোনির শেষ ম্যাচে ভারতের হার
জাস্ট নিউজ -
ঢাকা, ১১ জানুয়ারি (জাস্ট নিউজ) :  টেস্ট সিরিজে ইংল্যান্ডকে বিধ্বস্ত করার পর এবার ভারতের সামনে ওয়ানডে মিশন। সীমিত ওভারের সিরিজ শুরু হওয়ার আগে নিজেদের প্রস্তুতিটা ভালো করতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। মঙ্গলবার প্রস্তুতি ম্যাচে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বাধীন ভারতীয় ‘এ’ দলকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে ইংল্যান্ড একাদশ।

বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ও শেষ প্রস্তুতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি। নিছক এক প্রস্তুতি ম্যাচই ছিল। কিন্তু দর্শকদের উপচে-পড়া ভিড় লক্ষ্য করা যায় ম্যাচটিতে। কারণটাও বিশেষ। গত সপ্তাহে ভারতের ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি দলের অধিনায়কত্ব থেকে পদত্যাগ করেন ধোনি। অধিনায়ক হিসেবে মঙ্গলবার শেষ ম্যাচ খেলতে নামেন তিনি। সেই ম্যাচটিতে অবশ্য জয় পাননি ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা অধিনায়ক। আসন্ন ওয়ানডে ও টি-টুয়েন্টি সিরিজে কোহলির নেতৃত্বে খেলবেন ধোনি।

মুম্বাইয়ে ব্রাবোর্ন স্টেডিয়ামে আগে ব্যাটিংয়ে নেমে টপ ও মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের দৃঢ়তায় নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩০৪ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ দাঁড় করায় ভারত। জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে ৭ বল ও ৩ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে নোঙর করে ইংল্যান্ড একাদশ।

ইংল্যান্ডের জয়ের নায়ক স্যাম বিলিংস। তিন নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮৫ বলে ৮টি চারের সাহায্যে ৯৩ রানে দারুণ ইনিংস খেলেন তিনি। এছাড়া জেসন রয় ৬২, অ্যালেক্স হেলস ৪০ ও জস বাটলার করেন ৪৬ রান।

ভারতের সফলতম বোলার কুলদীপ যাদব। ৬০ রানের বিনিময়ে সর্বোচ্চ ৫ উইকেট নেন তিনি। এছাড়া একটি করে উইকেট নেন হার্দিক পান্ডে ও যোগেন্দ্র চাহাল।

জয়ের জন্য ৩০৫ রানের বড় লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নামা ইংল্যান্ড জেসন রয় ও হেলসের মধ্যকার ৮৭ বলে ৯৫ রানের জুটিতে উড়ন্ত সূচনা পায়। তবে ৯৫ থেকে ১১২- এই ১৭ রানের ব্যবধানে জেসন, হেলস ও ইয়ন মরগ্যানের বিদায়ে চাপের মুখে পড়ে যায় স্বাগতিকরা। তবে বিলিংস ও বাটলারের মধ্যকার ৭৯ রানের দারুণ জুটিতে ম্যাচে ফিরে আসে ইংল্যান্ড একাদশ।

৩১তম ওভারে বাটলার ও মঈন আলিকে আউট করে ভারতকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনার স্বপ্ন দেখান কুলদীপ। তবে বিলিংস ও ডওসনের মধ্যকার ৮৭ বলে ৯৯ রানের জুটিতে ভারতের হার সময়ের ব্যাপারে পরিণত হয়। দলীয় ২৯০ রানের মাথায় ডওসন ও বিলিংস আউট হয়ে ফিরে গেলেও কোনো সমস্যা হয়নি ইংল্যান্ডের। ক্রিস ওকস (১১) ও আদিল রশিদ (৬) মিলে ১৭ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে জয়ের বাকি আনুষ্ঠানিকতাটুকু সেরে ফেলেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ভারতের। মান্দীপ সিং দলীয় ২৫ রানের মাথায় ডেভিড উইলির বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফিরে গেলে হোঁচট খায় স্বাগতিকরা। তবে দ্বিতীয় উইকেট আম্বাতি রাইয়ুডু ও শিখর ধাওয়ান ১১১ রানের দারুণ জুটি গড়লে ম্যাচে ফিরে আসে ভারত।

দলীয় ১৩৬ রানের মাথায় ধাওয়ান আউট হয়ে গেলে রাইয়ুডু ও যুবরাজ সিং মিলে ৯১ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের দিকে নিয়ে যান। সেঞ্চুরি করার পরপরই রাইয়ুডু রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন। এরপর শুরু হয় ধোনি-শো। যুবরাজ, সঞ্জু স্যামসন ও হার্দিক পান্ডেকে নিয়ে জুটি গড়ে দলের সংগ্রহ ৩০০ পেরিয়ে নেন।

রাইয়ুডু ৯৭ বলে ১১টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে ঠিক ১০০ রান করে মাঠ ছাড়েন। ধাওয়ান ৬৩ ও যুবরাজ করেন ৫৬ রান। ধোনি ৪০ বলে ৮টি চার ও ২টি ছক্কার সাহায্যে ৬৮ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন।

প্রসঙ্গত, আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে ইংল্যান্ড ও ভারতের মধ্যকার তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে। এরপর দল দুটি সমান ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে মুখোমুখি হবে। ওয়ানডে সিরিজের আগে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজে ইংলিশদের ৪-০ ব্যবধানে নাস্তানাবুদ করে টিম ইন্ডিয়া।

(জাস্ট নিউজ/জেআর/১৭২০ঘ.)
মতামত দিন
খেলার মাঠ :: আরও খবর
প্রচ্ছদ
ছবি গ্যালারী
যোগাযোগ