Monday September 25, 2017
বিশেষ রিপোর্ট
22 May 2016, Sunday
প্রিন্ট করুন
বৌদ্ধ ভিক্ষু হত্যা চরম উদ্বেগজনক
পরিস্থিতি বিবেচনায় কাজ শুরু করবেন তারানকো : মুখপাত্র ফারহান
জাস্ট নিউজ -
নিউইয়র্ক থেকে মুশফিকুল ফজল আনসারী, ১৭ মে (জাস্ট নিউজ) : গত শনিবার বান্দরবানে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় অজ্ঞাতদের হাতে ধাম্মা ওয়াসা মং শৈ উ চাক নামে একজন ভিক্ষুকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। একই সঙ্গে পরিস্থিতি উত্তরণে জাতিসংঘ মহাসচিব নিযুক্ত সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকো কাজ শুরু করতে পারেন বলে আভাস দিয়েছে এ বিশ্ব সংস্থাটি।

সোমবার জাতিসংঘের নিয়মিত ব্রিফিংয়ে উক্ত প্রতিবেদক জানতে চান, গত শনিবার বাংলাদেশের বান্দরবান নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় এক বৌদ্ধ ভিক্ষু হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন। এরকম ঘটনা বাংলাদেশে এখন নিত্যনৈমত্তিক ব্যাপার। অপরদিকে সরকার বিরোধীদের ওপর দমন নীতি অব্যাহত রেখেছে। প্রধান বিরোধী নেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ সকল পর্যায়ের নেতাদের বিরুদ্ধে শতাধিক মামলা রুজু করা হয়েছে। জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকো মহাসচিবের পক্ষে বাংলাদেশে স্থিতি প্রতিষ্ঠা ও একটি অংশগ্রহণমূলক অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য কাজ করছিলেন। তিনি কী তার কাজ অব্যাহত রেখেছেন। এমন প্রশ্নের জবাবে জাতিসংঘ মহাসচিবের ডেপুটি মুখপাত্র ফারহান হক বলেন, আপনি জানেন যে, জাতিসংঘ মহাসচিবের পক্ষ থেকে শান্তি রক্ষার সংক্রান্ত সহকারী মহাসচিব কাজ করছিলেন। তিনি বাংলাদেশেও গিয়েছেন। এখনও পরিস্থিতি বিবেচনায় তিনি কাজ করবেন। তবে এতে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোকে একটি সমঝোতায় উপনীত হওয়া জরুরি।

বৌদ্ধ ভিক্ষু হত্যাকাণ্ডের ঘটনাকে চরম উদ্বেগজনক উল্লেখ করে ডেপুটি মুখপাত্র বলেন, ব্লগার, হিন্দু-বৌদ্ধসহ ধর্মীয় নেতা হত্যার ঘটনাগুলোকে জাতিসংঘ অত্যন্ত উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছে।

জাতিসংঘের প্রশ্নোত্তর পর্বের বাংলাদেশ অংশ নিচে তুলে ধরা হলো:

সহকারি মুখপাত্র: হ্যাঁ, মুশফিকুল বলুন।

প্রশ্ন: ধন্যবাদ। জনাব ফারহান। বাংলাদেশে দক্ষিণপূর্বের একটি জেলায় ৭৫ বছর বয়স্ক এক বৌদ্ধ সন্ন্যাসীকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে। আর এটা যেনো বাংলাদেশের একটা স্বাভাবিক চিত্র হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রতিদিনই এসব ঘটনা ঘটছে। সন্নাসী হত্যার ঘটনা মাত্র একদিন পূর্বে ঘটলো।

অপরদিকে সরকার, দেশের প্রধান বিরোধীদলের নেতা ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অন্যান্য নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করছে, শত শত মামলা দায়ের করছে। জাতিসংঘ মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকোকে তার পক্ষে বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুন:প্রতিষ্ঠা ও অংশগ্রহণমূলক এবং অবাধ একটি নির্বাচন আয়োজনে কাজ করার জন্য দায়িত্ব দিয়েছিলেন। তিনি কি তার কাজ অব্যাহত রেখেছেন?

সহকারি মুখপাত্র: আপনি জানেন যে, জাতিসংঘ মহাসচিবের পক্ষ থেকে তারানকো শান্তি রক্ষা সংক্রান্ত সহকারি মহাসচিব হিসেবে কাজ করছিলেন। অতীতে তিনি এ কাজের জন্য বাংলাদেশ সফরেও গিয়েছেন, যদি পরিস্থিতি বাধ্য করে তাহলে তিনি হয়তো আবার সংকট উত্তরনের জন্য তার কাজ শুরু করবেন। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলোর নিজেদের মধ্যে একটি সমঝোতায় উপনীত হওয়া জরুরি। আমরা দলগুলোকে সেদিকেই উৎসাহিত করি যাতে করে তারা শান্তিপূর্র্ণ সহায়ক পন্থায় তা সম্পন্ন করে।

আমরা অবশ্যই, ব্লগার, হিন্দু ও বৌদ্ধ সম্প্রদায় সহ অন্যান্যদের উপর আক্রমণকে চরম উদ্বেগের বিষয় বলে মনে করি। এ ইস্যুটা পুরোপুরি ব্যতিক্রম, চরমপন্থীরা বিভিন্ন সম্প্রদায়ের উপর হামলা করছে। আপনি এ ব্যাপারে জাতিসংঘ মহাসচিব ও মানবাধিকার সংগঠনগুলোর উদ্বেগ নিশ্চয় লক্ষ্য করে থাকবেন। আজকেও আমরা একই প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছি।


(জাস্ট নিউজ/প্রতিনিধি/একে/জিইউএস/০০৩৪ঘ.)
মতামত দিন
বিশেষ রিপোর্ট :: আরও খবর
প্রচ্ছদ
ছবি গ্যালারী
যোগাযোগ