Thursday February 23, 2017
বিশেষ রিপোর্ট
23 September 2016, Friday
প্রিন্ট করুন
কানাডায় দু’দফা বিক্ষোভের মুখে শেখ হাসিনা
জাস্ট নিউজ -
বিশেষ প্রতিনিধি, ১৯ সেপ্টেম্বর (জাস্ট নিউজ) : কানাডায় পা দিয়েই দু দফা বিক্ষোভের মুখে পড়লেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রথম দফা মন্ট্রিয়াল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর বহির্গমন টার্মিনাল ও দ্বিতীয় দফা হোটেল অমনি ইন্টারন্যাশনালর সামনে। অবিলম্বে নিরেপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করে পদত্যাগ, বিরোধী দলের প্রতি অত্যাচার নির্যাতন, খুন, গুম বন্ধ এবং ভারতের সঙ্গে অসম চুক্তি বাতিলের দাবিতে শত শত বাংলাদেশী কানাডিয়ান বৃহস্পতিবার এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে।

শুক্রবার বেলা ১১ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত গ্লোবাল ফান্ড আয়োজিত সম্মেলন স্থল হোটেল হায়াত রিজেন্সির সামনে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, ফিফ্থ রিপ্রেনিশমেন্ট কনফারেন্স অফ দ্যা গ্লোবাল ফান্ড টু ফাইট এইডস টিউবারকুলেসিস এন্ড ম্যালেরিয়া শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিতে ৪ দিনের সফরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এখন মন্ট্রিলে অবস্থান করেছিলেন।

সম্মেলনে তিনি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ অর্জনে বাংলাদেশের অগ্রগতি এবং এই কার্যক্রমে ধনী দেশ সমূহের অর্থ প্রদানের অঙ্গীকার প্রসঙ্গে বক্তব্যঃ দেবেন। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো এই সম্মেলনের উদ্ভোধন করবেন। কয়েকটি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধান এই সম্মেলনে যোগদানের কথা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কানাডার প্রধানমন্রীর সঙ্গে বৈঠক করবেন। তিনি তার পিতা শেখ মুজিবের হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্ত আসামি কানাডায় বসবাস করি নূর চৌধুরীকে ফেরত চাইবেন বলে জানাগেছে। এছাড়া মুক্তিযুদ্ধে বিশেষ অবদানের জন্য কানাডার বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর পিতা কে দেয়া মুক্তিযুদ্ধের সম্মাননা পদক টি ও তুলে দেবেন।

বৃহস্পতিবার মন্ট্রিয়েল বিমান বন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে ব্যাপক ও কঠোর নিরাপত্তা দিয়ে ডাউন টাউনের হোটেল অমনি ইন্টারন্যাশনালে মটর শোভা যাত্রা সহকারে নিয়ে আসা হয়। বিমানবন্দর

বহির্গমন টার্মিনালের সামনে কানাডা বিএনপির নেতা কর্মী সমার্থক ও বিপুল সংখ্যাক প্রবাসী বাংলাদেশিরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। বিকাল ৩ টা থেকে সাডে ৪ টা পর্যন্ত বিক্ষোভ শেষে আবার বিকাল ৫ টা থেকে সাডে ৬ টা পর্যন্ত শত শত মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। বিক্ষোভ কারীরা নানা ধরণের স্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত করে তোলে হোটেল অমনি প্রাঙ্গণ। হোটেল লবি থেকে বসে এই বিক্ষোভ প্রত্যক্ষ করেন প্রধানমন্ত্রীর সফর সঙ্গী মন্ত্রী ও এমপি এবং কর্মকর্তাগণ।

বিক্ষোভ কর্মসূচিতে কানাডা বিএনপির সভাপতি ফয়সাল আহমেদ চৌধুরী ,বাংলাদেশ ওয়াচ কানাডার সভাপতি আখতার আহমেদ, সেভ বাংলাদেশের সভাপতি ড, আবিদ বাহারের নেতৃত্বে শত শত প্রবাসী শরীক হন। রাস্তায় চলাচলকারী নারী পুরুষ ও ক্ষনিক খন দাঁড়িয়ে কর্মসূচি প্রত্যক্ষ করেন।

(জাস্ট নিউজ/ওটি/০৯৩০ঘ.)
মতামত দিন
বিশেষ রিপোর্ট :: আরও খবর
প্রচ্ছদ
ছবি গ্যালারী
যোগাযোগ